ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা

অনেক পরিবর্তন টি-টোয়েন্টি দলে - || স্বাধীনকন্ঠ২৪.কম ||

অনেক পরিবর্তন টি-টোয়েন্টি দলে

 
স্পোর্টস ডেস্ক: নতুন চেহারা পেয়েছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল। সবশেষ সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন সাত জন। দলে নতুন মুখ পাঁচ জন, দলে ফিরেছেন তিন জন। শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রথম টি-টোয়েন্টির জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করে বিসিবি। চোটের জন্য টেস্ট সিরিজে খেলতে না পারা সাকিব আল হাসান টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্ব দেবেন দলকে। আবু জায়েদ আবু জায়েদ প্রথমবারের মতো দলে ডাক পেয়েছেন দুই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান ও আফিফ হোসেন, পেস বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হক, পেসার আবু জায়েদ ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জাকির হাসান।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে বিপিএলের শেষ আসরে ১০ ম্যাচে ২৫.৭০ গড়ে ১০ উইকেট নেন মেহেদি। টি-টোয়েন্টিতে এখনও ব্যাটিংয়ে নিজের সামর্থ্য দেখাতে পারেননি। তবে ব্যাট হাতেও অবদান রাখার সামর্থ্য আছে তার। আফিফ হোসেন আফিফ হোসেন বিপিএলের দুটি আসরে খেলা আফিফ ১১ ম্যাচে ১৭.৪৫ গড়ে নেন ১১ উইকেট। অভিষেক ম্যাচে ২১ রানে ৫ উইকেট তার সেরা। ব্যাটিংয়েও হতে পারেন কার্যকর। ৯ ইনিংসে ১৭.৮৫ গড়ে করেন ১২৫ রান।  খুলনা টাইটান্সের পেসার জায়েদ বিপিএলের গত আসরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। ২০.৩৮ গড়ে নেন ১৮ উইকেট। সেরা ৪/৩৫। একই দলের অলরাউন্ডার আরিফুল ব্যাটিংয়ে ছিলেন বেশ সফল। মিডল অর্ডারে তার ঝড়ো ব্যাটিং ছিল কার্যকর। ১১ ইনিংসে ২৯.৬২ গড়ে করেন ২৩৭ রান। তার স্ট্রাইক রেট ১৩৩.১৪। আরিফুল হক আরিফুল হক রাজশাহী কিংসের হয়ে বিপিএলটা দারুণ কাটে জাকিরের। ৮ ম্যাচে ২৪.১৪ গড়ে এই তরুণ করেন ১৬৯ রান। সর্বোচ্চ অপরাজিত ৫১। দেড়শর বেশি রান করেছেন এমন স্থানীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে তার স্ট্রাইক রেটই ছিল সবচেয়ে বেশি, ১৪২.০১। চোট কাটিয়ে দলে ফিরেছেন তামিম ইকবাল ও মুস্তাফিজুর রহমান। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দলে ফিরেছেন পেসার আবু হায়দার। বিপিএলে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে ভালো পারফরম্যান্স দলে ফিরিয়েছে তাকে।  মেহেদি হাসান মেহেদি হাসান দক্ষিণ আফ্রিকায় সবশেষ সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাসির হোসেন, শফিউল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদ।


কোনো ম্যাচ না খেলেই বাদ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান মুমিনুল। ইমরুল দুই ম্যাচে করেন ১৬ রান, লিটন এক ম্যাচে ৯। মিরাজ, তাসকিন ও শফিউল জায়গা হারান বোলিং ব্যর্থতায়। অফ স্পিনার মিরাজ ৮ ওভারে ৭৭ রান নিয়ে নেন দুই উইকেট। পেসার তাসকিন ৫ ওভারে ৬২ রান দিয়ে উইকেটশূন্য। আরও বিবর্ণ ছিলেন শফিউল, ২ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি তিনি। জাকির হাসান জাকির হাসান দক্ষিণ আফ্রিকায় খরুচে বোলিং করলেও রুবেল হোসেন ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন টিকে গেছেন। দুইজনই ভালো বোলিং করেন বিপিএলে। ছন্দ হারিয়ে ওয়ানডে ও টেস্ট দল থেকে বাদ পড়া সৌম্য সরকার জায়গা ধরে রেখেছেন টি-টোয়েন্টি দলে। গত বছর টি-টোয়েন্টিতে দেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি।
আগামী বৃহস্পতিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। ১৮ ফেব্রুয়ারি সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে দুই ম্যাচের সিরিজের শেষটি। টি-টোয়েন্টির বাংলাদেশ দল: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, আবু হায়দার, আবু জায়েদ, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান, জাকির হাসান, আফিফ হোসেন।
 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

PopAds.net - The Best Popunder Adnetwork
x

Check Also

রানের মাইলফলকে সাকিব, তামিম, এনামুল, সাব্বির

নাইম ইসলাম (নিজস্ব প্রতিনিধি): ত্রিদেশীয় সিরিজের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষের আজকের ম্যাচটি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের জন্য আদর্শ বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে। আজকের ম্যাচে ...

Translate »
shares