স্বাধীনকন্ঠ২৪.কম পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা

ধর্ম Archives - || স্বাধীনকন্ঠ২৪.কম ||

ধর্ম

শেষ পরিণতিও ভালো হয় যে আমলে

হাদিসে পাকে প্রিয়নবি (সা.) বলেছেন, আল্লাহ তাআলার ৯৯টি গুণবাচক নাম আছে। যে ব্যক্তি এ গুণবাচক নামগুলোর জিকির করবে; সে জান্নাতে যাবে। আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নামের রয়েছে অসংখ্য ফজিলতপূর্ণ আমল। এসব আমল যথাযথ পালন করলে দুনিয়া ও পরকালের অনেক উপকার ও ফজিলত অর্জিত হয়। আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নাম সমূহের মধ্যে (اَلْاَخِرُ) ‘আল-আখিরু’ একটি। এ গুণবাচক নামের তাসবিহ বা আমল একজন পাপী ব্যক্তিকে ভালো পরিণতির দিকে ধাবিত করে। আল্লাহর গুণবাচক নাম (اَلْاَخِرُ) ‘আল-আখিরু’-এর জিকিরের আমল ও ফজিলত তুলে ধরা হলো- অর্থ : ‘সব কিছুর শেষেও যিনি থাকবেন।’ আল্লাহর ‍গুণবাচক নাম (اَلْاَوَّلُ)-এর আমল ও ফজিলত- * যে ব্যক্তি পাপ-করতে করতে জীবনের শেষ বয়সে ...

Read More »

শোক-তাপে চেঁচিয়ে বিলাপ, মাথা নেড়া করা কঠোরভাবে নিষেধ

আল হাদিস আবূ বুরদা রাহিমাহুল্লাহ্ থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন: “আবূ মূসা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু রোগ যন্ত্রণায় সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন, তখন তাঁর মাথা পরিবারস্থ কোন এক মহিলার কোলে ছিল। মহিলাটি চেঁচিয়ে কান্না করতেছিল। কিন্তু তার কান্না বন্ধ করার মত শক্তি তাঁর ছিল না। পরে যখন তিনি হুঁশ ফিরে পেলেন তখন বললেন: রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম যাদের থেকে মুক্ত আমিও তাদের থেকে মুক্ত। বন্তুতঃ তিনি সেসব নারীদের থেকে মুক্ত যারা শোকে বিলাপ করে, মাথা নেড়া করে এবং কাপড় ছেঁড়ে।” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ১২৯৬, মুসলিম: ১০৪

Read More »

উত্তরাধিকার আইন সংক্রান্ত আয়াত নাযিলের প্রেক্ষাপট

আল হাদিস জাবের রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেছেন: “নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও আবূ বকর (রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু) বনী সালেমা গোত্রের একটি স্থানে পায়ে হেঁটে আমাকে রোগ শয্যায় দেখতে আসলেন। নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে বেহুঁশ অবস্থায় দেখতে পেলেন। তখন আমার কোন বোধ ছিল না। তিনি পানি চেয়ে নিয়ে অযূ করলেন এবং অবশিষ্ট পানি আমার শরীরে ছিটিয়ে দিলেন। তখন আমি হুঁশ ফিরে পেলাম এবং বললাম: হে আল্লাহর রাসূল! আমার সম্পত্তি কিভাবে বন্টন করতে বলেন? এর জবাবে নিম্নোক্ত আয়াত নাযিল হলো: ’আল্লাহ্ তোমাদেরকে তোমাদের সন্তান সম্পর্কে নির্দেশ দিচ্ছেন’))” [বুখারী: ৪৫৭৭]

Read More »

মুসলিম সে, যার জিহ্বা ও হাত থেকে মুসলমানগণ নিরাপদ

আল হাদিস আব্দুল্লাহ্ বিন আমর রাদিয়াল্লাহু ‘আনহুমা নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে বর্ণনা করেছেন, তিনি বলেছেন: “ঐ ব্যক্তি মুসলিম, যার জিহ্বা ও হাত থেকে মুসলমানগণ নিরাপদ থাকে। আর মুহাজির হচ্ছে ঐ ব্যক্তি যে আল্লাহ্ যা নিষেধ করেছেন তা ত্যাগ করে।” [বুখারী: ১০]

Read More »

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় শেষ ইজতেমার প্রথম পর্ব

নিজস্ব প্রতিনিধিঃদুনিয়া ও আখেরাতের শান্তি কামনার পাশাপাশি মুসলিম উম্মাহর সমৃদ্ধি, সংহতি, অগ্রগতি এবং দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তাবলীগ জামাতের তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব আজ রোববার শেষ হয়েছে। টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে এই আখেরি মোনাজাতে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে রহমত ও হেদায়েত প্রার্থনা করেন। নিজ নিজ গুনাহ্ মাফ ও আত্মশুদ্ধি চেয়ে মোনাজাত করতে ইজতেমা ময়দানে জড়ো হন তারা। এবারই প্রথম বাংলা ভাষায় মোনাজাত শুরু হতেই লাখো মুসল্লির কলরব মুহূর্তে থেমে যায়। বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে নেমে আসে নীরবতা। তাঁর সঙ্গে লাখো মুসল্লি দুই হাত তুলে ‘আমিন’ ‘আল্লাহুম্মা আমিন’ ধ্বনি তোলেন ...

Read More »

ক্বাল্‌ব বা আত্মার পরিচয়

নিউজ ডেস্ক :দেহের হেফজতের চেয়ে ক্বাল্‌ব-এর হেফাজতের গুরুত্ব অনেক বেশি। দেহ হচ্ছে ক্বাল্‌ব-এর আবরণ মাত্র। মানুষ ক্বাল্‌ব (قلب) ও দেহের সমন্বয়ে সৃষ্টি। ক্বাল্‌ব-ই হচ্ছে মানুষের হেদায়াতের কেন্দ্র বিন্দু। আর পরিশুদ্ধ ক্বাল্‌ব ছাড়া সঠিক হেদায়াতও সম্ভব নয়। আল্লাহ তাআলা কুরআনে পাকে ইরশাদ করেন- ‘বিশ্বস্ত রূহ (জিবরিল) তা (কুরআন) নিয়ে অবতরণ করেছে। তোমার কলবে; যাতে তুমি সতর্ককারী হতে পার।’ (সুরা শুআরা : আয়াত ১৯৩-১৯৪) এ ক্বাল্‌ব বা হৃদয় বা আত্মাই পবিত্র কুরআনুল কারিমকে অধিক অনুধাবন করার এবং তা ধারণ ক্ষমতার অধিকারী। ক্বাল্‌বের পরিচয় ও গুরুত্ব তুলে ধরে হাদিসে পাকে প্রিয়নবি (সা:) বলেছেন- জেনে রেখ! তোমাদের শরীরের মধ্যে এক টুকরো গোশ্ত পিণ্ড আছে; ...

Read More »

দু’মুখো ব্যক্তি সর্বনিকৃষ্ট

আল হাদিস আবূ হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “তোমরা মানব জাতিকে খনির মত পাবে। তাদের মধ্যে (ইসলাম গ্রহণের পূর্বে) জাহেলী যামানায় যারা সর্বোত্তম, ইসলামেও তারা সর্বোত্তম। তবে শর্ত হলো যদি তারা (ইসলামী) জ্ঞান অর্জন করে। আর তোমরা তাদের মধ্যে (ইসলামের) এ নেতৃত্বের যে আসনে সর্বোত্তম ব্যক্তি হিসেবে তাকেই পাবে, যে (পূর্বে) ইসলামের ঘোর দুশমন ছিল। আর মানুষের মাঝে সবচেয়ে নিকৃষ্ট সেই দ্বিমুখী ব্যক্তিকেই পাবে, যে এক বেশে এদের কাছে আসে এবং আরেক বেশে অন্যদের কাছে যায়।” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ৩৪৯৩, মুসলিম: ২৫২৬]

Read More »

মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়া হারাম

আল হাদিস আবূ বাকারাহ্ নুফাই’ বিন হারেস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “আমি কি তোমাদেরকে সবচেয়ে বড় ও মারাÍক গোনাহ্ সম্পর্কে বলবো না? এ কথাটা তিনি তিনবার বললেন। আমরা বললাম: অবশ্যই বলুন, হে আল্লাহর রাসূল! তিনি বললেন: আল্লাহর সাথে শির্ক করা, পিতামাতার অবাধ্যতা; তিনি হেলান দিয়ে ছিলেন, অতঃপর (সোজা হয়ে) বসে বললেন: সাবধান! মিথ্যা কথা বলা এবং মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়া। এ কথাটি তিনি বার বার বলতে ছিলেন, এমনকি আমরা বলতে লাগলাম- আহা! যদি তিনি থেমে যেতেন।” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ৫৯৭৬, মুসলিম: ৮৭]

Read More »

মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়া হারাম

আল হাদিস আবূ বাকারাহ্ নুফাই’ বিন হারেস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “আমি কি তোমাদেরকে সবচেয়ে বড় ও মারাÍক গোনাহ্ সম্পর্কে বলবো না? এ কথাটা তিনি তিনবার বললেন। আমরা বললাম: অবশ্যই বলুন, হে আল্লাহর রাসূল! তিনি বললেন: আল্লাহর সাথে শির্ক করা, পিতামাতার অবাধ্যতা; তিনি হেলান দিয়ে ছিলেন, অতঃপর (সোজা হয়ে) বসে বললেন: সাবধান! মিথ্যা কথা বলা এবং মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়া। এ কথাটি তিনি বার বার বলতে ছিলেন, এমনকি আমরা বলতে লাগলাম- আহা! যদি তিনি থেমে যেতেন।” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ৫৯৭৬, মুসলিম: ৮৭]

Read More »

মাওলানা সাদকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ভারতের তাবলীগ জামাতের মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ তাবলীগ জামাতের একাংশ ও আলেমরা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে সাদ বিরোধীদের সমাবেশে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। সমাবেশে কওমী আলেম ও বাংলাদেশ খেলাফত মজসিলের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বলেন, ‘মাওলানা সাদকে ইজতেমায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হচ্ছে। ইজতেমা নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের নির্মূল করা হবে।’ তাবলিগের জিম্মাদার মাওলানা লোকমান বলেন, ‘মাওলানা সাদের উপস্থিতিতে কোনও ইজতেমা হবে না। পুলিশ যদি আমাদের বাধা দেয়, তাহলে ঘরে ঘরে আগুন জ্বলবে। যদি কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে তবে তার দায় সাদকে নিতে হবে’। এর আগে দুপুর ১২টা থেকে ...

Read More »

যে কারণে মাওলানা সাদ বিতর্কিত

নিউজ ডেস্কঃ ভারতের তাবলীগ জামাতের ‘মুরব্বি’ হিসেবে পরিচিত মাওলানা সাদ কান্ধলভী ভারতসহ বাংলাদেশের তাবলীগ জামাতের মুরব্বিদের কাছে কেন বিতর্কিত আপত্তিকর তার নমুনা নিচে দেয়া হলো- মাওলানা ইলিয়াছ শাহ দিল্লির নিজামুদ্দিন মসজিদ থেকে সর্বপ্রথম তাবলিগের কাজ শুরু করেন। মাওলানা ইলিয়াছ এর ছেলে মাওলানা হারুন। তারই ছেলে হলেন মাওলানা সাদ কান্ধলভী। দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের বর্তমান মুরব্বী সাদ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় কুরআন, হাদিস, ইসলাম, নবি-রাসুল ও নবুয়ত এবং মাসআলা-মাসায়েল নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন। তিনি তার এ সব আপত্তিকর মন্তব্যের জন্য দেওবন্দসহ বিশ্ব আলেমদের কাছে বিতর্কিত হয়েছেন। তার বিতর্কিত মন্তব্যগুলো ‘সা’আদ সাহেবের আসল রূপ’ নামে একটি ছোট্ট বই আকারে প্রকাশ করেছেন জামিয়া মাদানিয়া ...

Read More »

যিকিরের ফযীলত

আল হাদিস আবূ হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “এমন দু’টি বাক্য আছে যা উচ্চারণ করতে খুবই সহজ, ওজন-দ-ের পরিমাপে খুবই ভারী, দয়াময় আল্লাহর নিকট খুবই প্রিয়। (বাক্য দু’টি হলো-) ‘সুবহানাল্লাহি ওয়াবিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল ‘আযীম’। (অর্থ: মহা পবিত্র আল্লাহ্, তাঁর জন্য সমস্ত প্রশংসা। মহা পবিত্র আল্লাহ্, তিনি মহামহিম।)” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ৬৪০৬, মুসলিম: ২৬৯৪]

Read More »

ইসলামে মায়ের মর্যাদা

নিউজ ডেস্ক : জগৎ সংসারের শত দুঃখ-কষ্টের মাঝে যে মানুষটির একটু সান্ত্বনা আর স্নেহ-ভালোবাসা আমাদের সব বেদনা দূর করে দেয়, তিনিই হলেন মা। পৃথিবীতে সবচেয়ে মধুর শব্দটি হচ্ছে মা। মায়ের চেয়ে আপনজন পৃথিবীতে আর কেউ নেই। দুঃখে-কষ্টে, বিপদে-সংকটে যে মানুষটি স্নেহের পরশ বিছিয়ে দেন, তিনি হচ্ছেন আমাদের সবচেয়ে আপনজন, মা। প্রতিটি মানুষ পৃথিবীতে আসা এবং বেড়ে ওঠার পেছনে প্রধান ভূমিকা একমাত্র মায়ের। যার তুলনা অন্য কারো সঙ্গে চলে না। মায়ের সঙ্গে সন্তানের নাড়ির সম্পর্ক, যা একটু আঘাত পেলেই প্রতিটি মানুষ ‘মা’ বলে চিৎকার দিয়ে জানান দিয়ে থাকে। একদিন হজরত মুয়াবিয়া ইবনে জাহিমা আসসালামী (রা:) রাসুল (সা:)-এর খেদমতে হাজির হয়ে বললেন, ...

Read More »

আত্মগৌরবের অপকারিতা

ধর্ম ডেস্ক: অহংকারের একটি শাখা হলো আত্মগৌরব। অহংকার ও আত্মগৌরবের মধ্যে বিভেদ রয়েছে। আত্মগৌরব হলো অন্যের দিকে লক্ষ্য না করে শুধুমাত্র নিজেকে মহতি গুণের মালিক বলে ধারণা করা এবং আল্লাহ তাআলা প্রদত্ত গুণাবলীকে নিজস্ব সম্পদ মনে করা। আল্লাহ তাআলা প্রদত্ত গুণ নিজ থেকে হারিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে আল্লাহ তাআলাকে ভয় না করাও আত্মগৌরবের অর্ন্তগত। আর অহংকার হলো নিজেকে অন্যের তুলনায় বড় মনে করা আর অন্যকে তুচ্ছ ও নিকৃষ্ট মনে করা। শয়তানই ছিল দুনিয়াতে প্রথম অহংকারী। আল্লাহ তাআলা কুরআনুল কারিমের আত্মগৌরব না করার ব্যাপারে নির্দেশ প্রদান করেছেন। কুরআনে এসেছে- অতএব তোমরা আত্মপ্রশংসা করবে না, কে মুত্তাকি এ সম্পর্কে তিনিই সম্যক জানেন। (সুরা ...

Read More »

নসিহত বা সদুপদেশ

আল হাদিস আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন: “তোমাদের কেউ পূর্ণ মুমিন হতে পারবে না, যতক্ষণ না সে তার ভাইয়ের জন্য তাই পছন্দ করবে যা সে নিজের জন্য পছন্দ করে।” [বুখারী: ১৩, মুসলিম: ৪৫]

Read More »

ইসলামে ফরজ গোসলের সঠিক নিয়ম ও শর্তসমূহ

ধর্ম ডেস্ক :ফরজ গোসলের সঠিক নিয়ম না জানার কারণে অসংখ্য মুসলিম ভাই- বোনের সালাত সহ নানা আমল কবুল হয় না। যেটা ঈমানের ক্ষেত্রে চরম ভয়ানক ব্যাপার। যেসব কারণে গোসল ফরজ হয়ঃ (১) স্বপ্নদোষ বা উত্তেজনাবশত বীর্যপাত হলে। (২) নারী-পুরুষ মিলনে (সহবাসে বীর্যপাত হোক আর নাই হোক)। (৩) মেয়েদের হায়েয-নিফাস শেষ হলে। (৪) ইসলাম গ্রহন করলে(নব-মুসলিম হলে)। ফরজ গোসলের ফরজ সমূহ হলো- গোসলের ফরজ মোট তিনটি। এই তিনটির কোনো একটি বাদ পরলে ফরজ গোসল আদায় হবে না। তাই ফরজ গোসলের সময় এই তিনটি কাজ খুব সর্তকতার সাথে আদায় করা উচিত। (১) গড়গড়া কুলি করা। (২) নাকে পানি দেওয়া। (৩) এরপর সারা ...

Read More »

কালিজিরা মৃত্যু ব্যতীত সকল রোগের ঔষধ

আল হাদিস আয়েশা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহা থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি: “এ কালিজিরা সাম ব্যতীত সমস্ত রোগের নিরাময়। আমি বললাম: সাম কি? তিনি বললেন: মৃত্যু!” [বুখারী: ৫৬৮৭]

Read More »

পবিত্র কোরআন নাজিলের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও পরিচিতি

ধর্ম ডেস্ক :মানুষের ইহলৌকিক কল্যাণ ও পারলৌকিক মুক্তির দিগদর্শণ মুসলিম উম্মাহর জন্য শ্রেষ্ঠতম নিয়ামত আল্লাহর বাণী পবিত্র ‘আল-কোরআন’। এটি বিশ্বমানবতার মুক্তিদূত মহানবী হযরত মুহম্মদ (সা:) এর প্রতি আল্লাহর কাছ থেকে জিবরাইল ফেরেশতা মারফত সুদীর্ঘ ২৩ বছরে অবতীর্ণ হয়। কোরআন মানবজাতির সর্বাঙ্গীণ কল্যাণ ও মুক্তির দিশারি বা পথপ্রদর্শক। পবিত্র কোরআনকে সর্বকালের, সর্বদেশের, সর্বলোকের জীবনবিধান ও মুক্তির সনদ হিসেবে আল্লাহ তাআলা ওহীর মাধ্যমে নাজিল করেছেন। পবিত্র কোরআন নাজিলের ছয় মাস আগে থেকেই আল্লাহ তাআলা উনার পেয়ারে হাবিব হযরত মুহম্মদ (সা:) কে স্বপ্নের মাধ্যমে এ মহান কাজের জন্য প্রস্তুত করে নিচ্ছিলেন। ইতিহাসের প্রমাণ অনুযায়ী প্রথম ওহী এসেছিল রমযান মাসের ২১ তারিখ সোমবার রাত্রে। ...

Read More »

ডান হাতে শৌচকর্ম করা নিষিদ্ধ

আল হাদিস আবু কাতাদা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন, তোমাদের কেউ যেন কোন কিছু পান করার সময় পাত্রে নিশ্বাস না ফেলে। আর প্রস্রাব-পায়খানা করার সময় কেউ যেন তার ডান হাত দিয়ে পুরুষাংগ না ধরে এবং ডান হাতে সৌচকর্ম না করে। (বুখারী-কিতাবুল ওযূ)  

Read More »

অনুদান-উপহার ফেরত নেয়া ঘৃণ্যকাজ

আল হাদিস আব্দুল্লাহ্ ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “যে ব্যক্তি হেবা (দান, উপহার) করে তা ফেরত নেয় সে এমন কুকুরের সমতুল্য যে বমি করে তা পুনরায় গলাধঃকরণ করে।” [মুত্তাফাকুন ‘আলাইহি, বুখারী: ২৫৮৯, মুসলিম: ১৬২২]

Read More »
PopAds.net - The Best Popunder Adnetwork
Translate »