ধর্ম

পিরোজপুরে এক বাড়িতে ৪০ প্রতিমা

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে পিরোজপুরে একটি বাড়িতে ৪০টি প্রতিমার নিয়ে চমক সৃষ্টি হয়েছে। জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের কবুতরখালী হালদার বাড়ির রাজদীপ ভবনে এই পূজা মণ্ডপ তৈরি করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এটিই জেলার সবচাইতে বড় পূজা মণ্ডপ। মঠবাড়িয়ার সর্ববৃহৎ দুর্গাপূজা হিসেবে ইতোমধ্যে নাম ছড়িয়ে পড়েছে হালদার বাড়ির এই পূজা মণ্ডপটির। দর্শনার্থীদের আগাম পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে হালদার বাড়ি। তবে এ উপজেলায় ছোট-বড় মিলে ৮৬টি মণ্ডপ তৈরি হলেও সবার দৃষ্টি এখন হালদার বাড়ির রাজদীপ ভবনের এ পূজা মণ্ডপটির দিকে। সরেজমিনে হালদার বাড়ি পূজা মণ্ডপে গিয়ে দেখা গেছে, সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রায় এক একর জমিতে বসানো হয়েছে ...

Read More »

আবু তালিবের জন্য নবীজির শাফায়াত ও তাঁর শাস্তি হ্রাসকরণ প্রসজ্ঞে

আব্বাস ইবনে আবদুল মুত্তালিব (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি একদিন নবী (সা)-কে জিজ্ঞেস করলেন, আপনি আপনার চাচার (আবু তালিবের) কি উপকার করেছেন? তিনি তো আপনার হেফাজত করতেন ও আপনার জন্য লড়াই করতেন। নবী (সা) বললেন, বর্তমানে তিনি (আবু তালিব) মাত্র পায়ের গিরা পর্যন্ত আগুনে ডুবে আছেন। যদি আমি না থাকতাম, তবে জাহান্নামের গভীর গহ্বরে পড়ে থাকতেন। (বুখারী-কিতাবু মানাকিবিল আনসার)

Read More »

“আপনার নিকটআÍীয়দের ভয় প্রদর্শন করুন”

আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, যখন কুরআন পাকের আয়াত অর্থাৎ আপনার নিকটাÍীয় এবং তাদের মধ্যেও বিশেষ করে নিজের গোত্রের লোকদের সাবধান করো। নাযিল হলো, তখন রাসূলুল্লাহ (সা) বের হলেন এবং সাফা পাহাড়ের উপর উঠে, “ইয়া সাবাহাহ” (সকালবেলার মহাবিপদ) বলে চিৎকার করে উঠলেন, এ আওয়াজে সবাই সন্ত্রস্ত হয়ে বলে উঠলো, এভাবে কে ডাকছে? এরপর সবাই তার নিকট হাজির হলে তিনি বললেন, আচ্ছা আমি যদি বলি যে, পাহাড়ের অপর পাশে একদল অশ্বারোহী সৈন্য তোমাদের উপর হামলার জন্য তৈরি হয়ে আছে, তাহলে কি তোমরা আমার কথা বিশ্বাস করবে না? সবাই বললো, আপনি কখনো মিথ্যা বলছেন এমন অভিজ্ঞতা আমাদের নেই। তখন ...

Read More »

আল-হাদিস

আল্লাহ তা‘আলার বাণী “আপনার নিকটআÍীয়দের ভয় প্রদর্শন করুন আবু হুরাইরা (রা) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, যখন আল কুরআনের আয়াত, হে মুহাম্মদ (সা)! তোমার নিকট আÍীয়দের ভয় প্রদর্শন করো আল্লাহ নাযিল করলেন, তখন রাসূলুল্লাহ (সা) দাঁড়িয়ে যান এবং বলতে থাকেন, হে কুরাইশ সম্প্রদায়! কিংবা অনুরূপ কোন বাক্য, তোমরা নিজেদের আল্লাহর শাস্তি থেকে রক্ষা করো। আমি আল্লাহর নিকট তোমাদের জন্য কিছুই করতে পারবো না। হে আবদে মানাফের বংশধর! আমি তোমাদের জন্য আল্লাহর নিকট কিছুই করতে পারবো না। হে আবদুল মুত্তালিবের পুত্র আব্বাস! আমি আল্লাহর দরবারে আপনার কোন উপকার করতে পারবো না। হে রাসূলুল্লাহ (সা)-এর ফুফু সাফিয়্যা! আল্লাহর দরবারে আমার দ্বারা কোন উপকার ...

Read More »

যে মসজিদ থেকে হজের খুতবা দেওয়া হয়

নিউজ ডেস্কঃ হজ পালনে আসা প্রত্যেকের কাছেই মসজিদে নামিরা বিশেষভাবে পরিচিত। আরাফার ময়দানের পশ্চিম সীমান্তে অবস্থিত বিখ্যাত নামিরা মসজিদ থেকে হজের খুতবা দেওয়া হয়। ৯ জিলহজ হজপালনকারীরা এই মসজিদের পাশের রাস্তা দিয়ে হেঁটে হেঁটে মুজদালিফা যান। হিজরি দ্বিতীয় শতকে নামিরা মসজিদ নির্মিত হয়। মসজিদের বর্তমান নান্দনিক রূপটি সাম্প্রতিক সৌদি শাসনামলের। মসজিদটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এর আয়তন ১,১০০০০ বর্গমিটার। এখানে একত্রে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন। সে হিসেবে এটি বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ মসজিদ। মসজিদের পাশে একটি রাজকীয় প্রাসাদ রয়েছে। হজের সময় বাদে বছরের অন্য সময় এ এলাকায় মানুষজন খুব একটা থাকে না। তাই মসজিদটি বেশিরভাগ সময় বন্ধ থাকে। ...

Read More »

যেখানে কন্যা শিশুদের জীবন্ত কবর দেওয়া হতো

নিউজ ডেস্কঃ মক্কা নগরী থেকে: মক্কার মসজিদে হারামের পশ্চিম-উত্তর কোণের দিকটার নাম ‘জাবালে ওমর’। সেখানে একটি বাসস্ট্যা- রয়েছে। নাম ‘সেপকো’। বেশক’টি রাস্তা এসে মিলেছে সেখানে। মসজিদে হারামে আসা-যাওয়ারও অন্যতম পথ এটা। রাস্তার দক্ষিণে বিশাল বিশাল হোটেল নির্মাণ করা হচ্ছে। এসব হোটেলের সামনের ফ্লাইওভার এবং মসজিদে হারামের সীমানার মাঝামাঝিতে একটি খালি জায়গা। মসজিদে হারামের সম্প্রসারণের কারণে হারাম এলাকা লাগোয়া এমন খালি জায়গা আর দেখা যায় না। কিন্তু এ জায়গাটি খালি। মূল্য বিচারে জায়গাটি খালি থাকার কথা না। তারপরও খালি। এই খালি জায়গাটিতে অন্ধকার যুগে আরবের লোকেরা তাদের কন্যা সন্তানদের জীবন্ত কবর দিতো। জায়গাটিতে কোনো স্মৃতিচিহ্ন নেই, কোনো ফলক নেই। শুধু জায়গাটি ...

Read More »

মক্কার বিখ্যাত তিন মসজিদ

নিউজ ডেস্কঃ মক্কা ঐতিহাসিক ও প্রাচীন এক জনপদের নাম। এর অলিগলিতে ছড়িয়ে আছে ইতিহাসের অসংখ্য উপাদান। মক্কার পরতে পরতে মিশে আছে ইসলামি ঐতিহ্যের নানা অনুষঙ্গ। এমনই তিনটি ঐতিহাসিক মসজিদ নিয়ে আজকের আয়োজন। মসজিদে মাশআরে হারাম মুজদালিফা। এটি মক্কার নিকটবর্তী একটি সমতল এলাকার নাম। মিনা ও আরাফাতের পথে মিনার দক্ষিণ পূর্বে এর অবস্থান। হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্নের জন্য হাজিদের এখানে এক রাত অবস্থান করতে হয়। ৯ জিলহজ আরাফাতের ময়দানে অবস্থানের পর হজপালনকারীরা মুজদালিফায় এসে রাত্রিযাপন করেন। এটা হজের অংশ। এখানে রাতযাপন শেষে মিনায় শয়তানের প্রতীকী স্তম্ভে পাথর নিক্ষেপের জন্য এখানে থেকে পাথর সংগ্রহ করা হয়। মসজিদে মাশআরে হারাম মুজদালিফায় একটি ঐতিহাসিক মসজিদ ...

Read More »

পবিত্র আশুরা ১ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র মহররম মাসের চাঁদ দেখা গেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চাঁদ দেখা যায়। সেই হিসেবে শুক্রবার শুরু হচ্ছে নতুন আরবি বছর। আগামী ০১ অক্টোবর (১০ মহররম) পালিত হবে পবিত্র আশুরা। রাজধানীর বায়তুল মুকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চাঁদ দেখা যাওয়ায় শুক্রবার থেকে মহররম মাস গণনা শুরু হবে, আগামী ১ অক্টোবর সারা দেশে পবিত্র আশুরা উদযাপিত হবে। আশুরা উপলক্ষে ১ অক্টোবর নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি থাকবে। হিজরি সনের প্রথম মাস হচ্ছে মহররম। আশুরার দিন দেশে নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি থাকে। শিয়া সম্প্রদায়ের ...

Read More »

আল কুরআন

সূরা ফুরকানের চতুর্থ আয়াতে মহান আল্লাহ বলেছেন- “কাফেররা বলে, এটা তথা কুরআন মিথ্যা ছাড়া অন্য কিছু নয়, যা তিনি অর্থাৎ মুহাম্মাদ (সা.) রচনা করেছেন এবং অন্য একদল তাঁকে এ কাজে সাহায্য করেছে। নিঃসন্দেহে তারা এই অপবাদ রটনা করে অবিচার ও বড় ধরনের মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে।” -সূরা ফুরকান (আয়াত-০৪)। কাফিররা যুগে যুগে মহান আল্লাহর পাঠানো নবী-রাসূলদের ব্যক্তিত্বকে প্রশ্নের মুখোমুখি করার জন্য নানা অপবাদ ও মিথ্য তথ্য প্রচার করেছে। তারা এই মহাপুরুষদের ‘মিথ্যাবাদী’ বলে অভিহিত করে বলতো, দুনিয়ার সম্পদ ও ক্ষমতা লাভের জন্যই তাঁরা নবুওতের মিথ্যা দাবি করছেন। তাঁরা মানুষের জন্য যেসব আসমানি কিতাব এনেছেন সেসবও গোপনে অন্য একদল মানুষের সহায়তায় রচনা ...

Read More »

আল কুরআন

সূরা ফুরকানের ৩ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে- “তবুও তারা (অর্থাৎ কাফেররা) তাঁর পরিবর্তে কত উপাস্য গ্রহণ করেছে, যারা কিছুই সৃষ্টি করে না এবং তারা নিজেরাই সৃষ্ট। যারা নিজেদের জন্যও উপকার বা অপকার করার ক্ষমতা রাখে না এবং জীবন মরণ ও পুনরুজ্জীবনেরও মালিক তারা নয়।” -সূরা ফুরকান (আয়াত-০৩)। আগের আয়াতে একত্ববাদের কথা বর্ণনার পর এ আয়াতে আল্লাহ বলেন, কাফেররা আল্লাহ সঙ্গে শিরক করে এবং মূর্তিপূজা করে। তারা মূতিগুলোকে জীবনের পরিচালক মনে করে। অথচ মূতিগুলো তাদের সৃষ্টিকর্তা বা পরিচালক নয়। এসব মূর্তি অন্যের উপকার করা তো দূরের কথা, নিজেদের জন্যও কিছু করতে পারে না। জন্ম-মৃত্যুর ওপর তাদের কোন প্রভাব নেই। পৃথিবী সৃষ্টির ...

Read More »
Translate »